জাতীয়

আজ বাংলাদেশ-মিয়ানমার উচ্চ পর্যায়ের দ্বিপাক্ষিক বৈঠক

  প্রতিনিধি ১৪ জুন ২০২২ , ১১:২৪:৩২ প্রিন্ট সংস্করণ

আজ বাংলাদেশ-মিয়ানমার উচ্চ পর্যায়ের দ্বিপাক্ষিক বৈঠক
আজ বাংলাদেশ-মিয়ানমার উচ্চ পর্যায়ের দ্বিপাক্ষিক বৈঠক

নিউজ ডেক্সঃ আজ মঙ্গলবার (১৪ জুন) রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে ভার্চুয়ালি দ্বিপাক্ষিক বৈঠক বসবে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার। নেপিডোর সেনা সমর্থিত সরকার ক্ষমতা দখলের পর প্রথমবারের মতো দুদেশের মধ্যে উচ্চ পর্যায়ের এই বৈঠক হতে যাচ্ছে।

300px X 250px AD

বৈঠকে ঢাকার পক্ষে নেতৃত্ব দেবেন পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন, আর নেপিডোর পক্ষেনেতৃত্ব দেবেন দেশটির পররাষ্ট্রসচিব উ চান আয়।

দেরিতে হলেও মিয়ানমারের সেনা সমর্থিত সরকারের সঙ্গে সচিব পর্যায়ের আলোচনার করতে পারার বিষয়টিকে বেশ গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে ঢাকা।

বৈঠক থেকে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনসহ সামগ্রিক বিষয়ে ভালো খবরের আশা করা হচ্ছে। মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন শুরু করা আমাদের জন্য খুব জরুরি।

মিয়ানমারে সেনা শাসন শুরু হওয়ার পর থেকে টেকনিক্যাল কমিটির মধ্যে চিঠি চালাচালি হচ্ছে। এরইমধ্যে অ্যাড-হক টাস্কফোর্স ফর ভেরিফিকেশন অব দ্য ডিসপ্লেসড পার্সনস ফ্রম রাখাইন-এর বৈঠক হলেও উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক হয়নি।

মন্ত্রণালয়ের ওই কর্মকর্তা বলেন, আমরা চেষ্টা করছি, মিয়ানমারকে এনগেজ করার। আমাদের বারবার অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে তারা বৈঠকে বসতে রাজি হয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক জ্যৈষ্ঠ কর্মকর্তা জানান, আমাদের দিক থেকে রোহিঙ্গা ইস্যুর সমাধানে বিভিন্ন প্রস্তাব আছে, সেগুলো মিয়ানমারের আন্তরিকতার অভাবে অসম্পূর্ণ অবস্থায় আছে; বৈঠকে সেগুলো আবার মনে করিয়ে দেওয়া হবে।

২০২১ সালের ১৯ জানুয়ারি চীনের মধ্যস্থতায় ত্রিপক্ষীয় বৈঠক করে বাংলাদেশ-মিয়ানমার। ওই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছিল পরের মাস ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে দুদেশের ওয়ার্কিং গ্রুপের বৈঠক হবে।

কিন্তু ওই মাসের শুরুতেই মিয়ানমারে রাজনৈতিক পটপরিবর্তন হয়। মিয়ানমারে অং সান সু চির সরকারকে হটিয়ে ক্ষমতা দখল করে সামরিক জান্তা।

এরপর ওই বছর আর আলোচনার টেবিলে বসতে পারেনি ঢাকা-নেপিডো। এর দীর্ঘ এক বছর পর চলতি বছরের শুরুর দিকে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বসে দুদেশ।

অ্যাড-হক টাস্কফোর্স ফর ভেরিফিকেশন অব দ্য ডিসপ্লেসড পার্সনস ফ্রম রাখাইনের ওই বৈঠকই ছিল সামরিক জান্তা ক্ষমতা দখলের পর টেকনিক্যাল কমিটি পর্যায়ে দুদেশের প্রথম বৈঠক।

 

আরও খবর

Sponsered content