ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হওয়ার প্রতিযোগিতা শুরু: সরে দাঁড়ালেন প্রীতি, সাজিদ - DesherSomoy24.com
ঢাকাশুক্রবার , ১৫ জুলাই ২০২২
  1. অপরাধ
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. নির্বাচন
  6. প্রচ্ছদ
  7. প্রধান খবর
  8. প্রবাসে বাংলা
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. ব্যবসা ও বাণিজ্য
  12. রাজনীতি
  13. শিক্ষা ও সাহিত্য
  14. সব
  15. সারাদেশ

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হওয়ার প্রতিযোগিতা শুরু: সরে দাঁড়ালেন প্রীতি, সাজিদ

Mohammad Ali Sumon
জুলাই ১৫, ২০২২ ৭:৪৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

হাকিকুল ইসলাম খোকন, সিনিয়র প্রতিনিধিঃ ব্রিটেনের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হওয়ার প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে। চূড়ান্ত পদপ্রার্থী সংখ্যা ১১ থেকে কমে আটে নেমে এসেছে। হেভিওয়েট প্রার্থীদের মধ্যে পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত জাভেদ ও ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রীতি প্যাটেল নিজেদের নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

মনোনয়নপত্র জমার প্রক্রিয়া শুরু হতেই কনজারভেটিভ পার্টির নেতা তথা ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে কিছুটা এগিয়ে গেছেন ঋষি সুনক। ব্রিটেনের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রীকে ইতিমধ্যেই ২০ জন কনজারভেটিভ এমপি সমর্থন জানিয়েছেন।

৪২ বছর বয়সী ভারতীয় বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ এমপিকে অবশ্য অনেক বাধা পার করতে হবে নিজের লক্ষ্যে পৌঁছতে হলে। তার প্রতিদ্বন্দ্বীদের মধ্যে অন্যতম হতে চলেছেন ইরাকি বংশোদ্ভূত কনজারভেটিভ এমপি তথা বর্তমান অর্থমন্ত্রী নাদিম জাহাবি। তাছাড়া কজারভেটিভ পার্টির আরও হেভিওয়েট সব নেতাও এই দৌড়ে সামিল হবেন।

এদিকে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে ঋষি সুনক এগিয়ে গেলেও দৌড় থেকে নাম প্রত্যাহার করলেন প্রীতি প্যাটেল। গুজরাটি বংশোদ্ভূত প্রীতি বর্তমানে ব্রিটেনের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী। তিনি স্পষ্ট জানান, তিনি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে সামিল হচ্ছেন না। বরং তার নজরে দেশের নিরাপত্তা ও সুরক্ষা থাকবে বলে জানান প্রীতি। প্রীতি বলেন, ‘স্বরাষ্ট্র সচিব হিসেবে, আমি সর্বদা আমাদের দেশের নিরাপত্তা ও সুরক্ষা এবং জাতীয় স্বার্থকে প্রাধান্য দিয়েছি।

আমার ফোকাস হলো আমাদের দেশের রাস্তায় আরো বেশি সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা। আমাদের দেশকে সুরক্ষিত রাখতে এবং আমাদের সীমান্ত নিয়ন্ত্রণ করতে আমাদের নিরাপত্তা পরিষেবাগুলোকে সমর্থন করাই আমার কাজ।’

গতকাল সন্ধ্যা ছ’টা পর্যন্ত কনজারভেটিভ পার্টির নেতা হওয়ার জন্য মনোনয়ন জমা দিতে পারতেন এমপিরা। শেষ পাওয়া খবর পর্যন্ত পেনি মর্ডান্ট এবং টম টুগেনধাতও ঋষির মতো ২০ এমপিদের সমর্থন নিয়ে মনোনয়ন পেশ করেছেন। তাছাড়া জেরেমি হান্ট, লিজ ট্রাসসহ মোট আটজন প্রতিদ্বন্দ্বী দৌড়ে টিকে আছেন এখনো।

এদিকে পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত সাজিদ জাভিদকে নিয়ে জল্পনা তৈরি হলেও শেষ মুহূর্তে তিনি দৌড় থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করেন। ২১ জুলাইয়ের মধ্যে কনজারভেটিভ পার্টির তরফে এই আট প্রতিদ্বন্দ্বী থেকে শেষ দুই প্রতিদ্বন্দ্বীকে বেছে নেয়া হবে। তাদের মধ্যেই শেষ লড়াই হবে। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।