ইউক্রেন সীমান্তে সৈন্য জড়ো করছে এখনও রাশিয়া যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী - DesherSomoy24.com
ঢাকাশুক্রবার , ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২
  1. অপরাধ
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. নির্বাচন
  6. প্রচ্ছদ
  7. প্রধান খবর
  8. প্রবাসে বাংলা
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. ব্যবসা ও বাণিজ্য
  12. রাজনীতি
  13. শিক্ষা ও সাহিত্য
  14. সব
  15. সারাদেশ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ইউক্রেন সীমান্তে সৈন্য জড়ো করছে এখনও রাশিয়া যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী

Mohammad Ali Sumon
ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২২ ৮:৫২ অপরাহ্ণ
Link Copied!

হাকিকুল ইসলাম খোকনঃ রাশিয়া ইউক্রেনের সীমানা বরাবর তার বাহিনীর সমাবেশ ঘটানো অব্যাহত রেখেছে। যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী লয়েড অস্টিন বৃহস্পতিবার বলেছেন, মস্কোর দাবি সত্বেও তিনি এমন কোন লক্ষণ দেখতে পাচ্ছেন না যে রাশিয়া সৈন্য ফেরত নিয়ে যাচ্ছে। পেন্টাগন প্রধান ব্রাসেলসে নেটো প্রতিরক্ষা মন্ত্রীদের বৈঠকে বলেন, “আমরা তা দেখতে পাচ্ছি না।

বরঞ্চ তার বিপরীতে , আমরা দেখতে পাচ্ছি যে তারা ইতোমধ্যেই সেই সীমান্ত বরাবর ১,৫০,০০০ সৈন্য মোতায়ন করেছে। এমনকি আমরা তাদের রক্তের সরবরাহ মজুদ করতেও দেখেছি।” অস্টিন বলেন, “আমি নিজেই জানি যে আপনি এই ধরণের জিনিসগুলি বিনা কারণে করেন না, এবং আপনি যদি ফিরে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত হন তবে আপনি অবশ্যই সেগুলি করবেন না,”।

যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা বলছেন, সাম্প্রতিক দিনগুলোতে মস্কো ইউক্রেন সীমান্তে আরও ৭ হাজার সেনা পাঠিয়েছে। ওয়াশিংটনে, প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন রাশিয়ার আক্রমণের হুমকিকে “খুব গুরুতর ” হিসাবে চিহ্নিত করেছেন। বাইডেন বলেন যে তিনি মনে করছেন রাশিয়া আক্রমণ করবে। তিনি বলেন, “হ্যাঁ, আমি মনে করি। এখন না হলেও আমার মনে হয় আগামী কয়েক দিনের মধ্যে এটি ঘটবে,”।

তবে বিডেন বলেন যে তিনি এখনও বিশ্বাস করেন একটি কূটনৈতিক সমাধান সম্ভব। অস্টিন বলেন যে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন যদি ইউক্রেন সংকটের কূটনৈতিক সমাধানের পরিবর্তে “যুদ্ধ বেছে নেন”, তবে পুতিনই দুর্ভোগের বিশাল ক্ষতির দায়ভার বহন করবেন।”

যুক্তরাষ্ট্র পূর্ব ইউক্রেনের ডনবাস অঞ্চলে রাশিয়ান বিচ্ছিন্নতাবাদী এবং কিয়েভের বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষও পর্যবেক্ষণ করছে, যেখানে গত আট বছরে ১৪,০০০ মানুষ নিহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার, ইউক্রেনীয় বাহিনী এবং রাশিয়া সমর্থিত বিদ্রোহীরা একটি যুদ্ধবিরতি রেখা বরাবর পরস্পরের বিরুদ্ধে গুলি বিনিময়ের অভিযোগ করেছে। অস্টিন বলেন, গোলাগুলির খবর “অবশ্যই উদ্বেগজনক। আমরা কিছু সময় ধরেই বলছি যে রাশিয়া সামরিক সংঘাতকে ন্যায্যতা দেওয়ার জন্য এরকম কিছু করতে পারে, তাই আমরা খুব ঘনিষ্ঠভাবে তা পর্যবেক্ষণ করব।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।