প্রধান খবর

কুতুপালং শিবিরে রোহিঙ্গা মাঝিকে পিটিয়ে হত্যা

  প্রতিনিধি ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২২ , ১০:৪৬:৪১ প্রিন্ট সংস্করণ

কুতুপালং শিবিরে রোহিঙ্গা মাঝিকে পিটিয়ে হত্যা
কুতুপালং শিবিরে রোহিঙ্গা মাঝিকে পিটিয়ে হত্যা

বিজ্ঞাপন

১৪ এপিবিএনে’র অধিনায়ক ও পুলিশ সুপার মো. নাঈমুল হক বলেন, মাঝি আবুল কালামকে নিজ বসতঘরের বাইরে রোহিঙ্গা দুষ্কৃতকারী নূর মোহাম্মদ, মো. ইব্রাহীম, মো. ফরিদ, জোবায়ের ও মো. জাবের লাঠিপেটা করে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে যান।

খবর পেয়ে বালুর মাঠ পুলিশ ক্যাম্পের একটি দল ঘটনাস্থলে এসে আহত আবুল কালামকে উদ্ধার করে এমএসএফের হাস’পাতালে পাঠায়।

প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে কক্স’বাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল সাড়ে আটটার দিকে আবুল কালাম মারা যান।

ময়নাতদন্তের জন্য লাশটি কক্সবাজার সদর হাস’পাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন বলে এপিবিএন জানিয়েছে।

এপিবিএনের পুলিশ সুপার বলেন, রোহিঙ্গা দুষ্কৃ’তকারী ও জড়িত ব্যক্তিদের গ্রেপ্তারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

গত বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর উখিয়ার লম্বাশিয়া শিবিরে রোহিঙ্গা নেতা মোহাম্মদ মুহিবুল্লাহকে গুলি চালিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। নিহত মুহিবুল্লাহ প্রত্যা’বাসনের পক্ষে সোচ্চার ছিলেন বলে পরিবার ও পুলিশ জানিয়েছিল।

এরপর একই বছরের ২২ অক্টোবর ভোরে উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের ১৮ নম্বর ময়নারঘোনা রোহিঙ্গা শিবিরের একটি মাদ্রাসায় একদল সন্ত্রাসী হামলা চালায়। এতে মাদ্রাসা’টির ছাত্র-শিক্ষকসহ ছয় রোহিঙ্গা নিহত হন।

আরও খবর

Sponsered content