যৌনকর্মীর সংকট নিয়ে অ্যামাজনে বাংলাদেশি চলচ্চিত্র ‘দেহস্টেশান’ - DesherSomoy24.com
ঢাকামঙ্গলবার , ২ আগস্ট ২০২২
  1. অপরাধ
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. নির্বাচন
  6. প্রচ্ছদ
  7. প্রধান খবর
  8. প্রবাসে বাংলা
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. ব্যবসা ও বাণিজ্য
  12. রাজনীতি
  13. শিক্ষা ও সাহিত্য
  14. সব
  15. সারাদেশ

যৌনকর্মীর সংকট নিয়ে অ্যামাজনে বাংলাদেশি চলচ্চিত্র ‘দেহস্টেশান’

Mohammad Ali Sumon
আগস্ট ২, ২০২২ ৩:২০ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বিনোদন ডেস্কঃ বাংলাদেশি নির্মাতা আহমেদ তাহসিন শামস নির্মিত চলচ্চিত্র ‘দেহস্টেশান’ মুক্তি পেয়েছে আন্তর্জাতিক ওটিটি প্লাটফর্ম অ্যামাজন প্রাইমে।

জুলাই থেকে যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রের দর্শকদের জন্য মুক্তি পেয়েছে চলচ্চিত্রটি। নির্মাতা জানান, কিছুদিনের মধ্যেই বাংলাদেশের দর্শকদের জন্যও চলচ্চিত্রটি উন্মুক্ত হতে যাচ্ছে।

সামাজিক বিয়োগাত্মক ঘরানার চলচ্চিত্রটিতে একজন যৌনকর্মী ও তার সন্তানের জীবন সংগ্রাম ও সমাজ বাস্তবতায় তাদের সুন্দর ভবিষ্যতের দিকে যাত্রার পরিণতির চিত্রও ফুটে উঠেছে।

চলচ্চিত্রটির কেন্দ্রিয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন কলকাতার অভিনেত্রী মৌমিতা মিত্র। আরও রয়েছেন বাংলাদেশের শাহাদাত হোসাইন, প্রয়াত এস এম মোহসিন, হোসাইন মোহাম্মদ বেলাল, আহমেদ রানা, মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইন, ফারহানা ইভা, সৈকত সিদ্দিকি প্রমুখ।

দেশের প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি না পেলেও চলচ্চিত্রটির গান ইতিমধ্যেই প্রকাশিত হয়েছে ইউটিউবে। চলচ্চিত্রটিতে ব্যাবহৃত গানগুলোতে কণ্ঠ দিয়েছেন জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী ফাহমিদা নবী, তানজির তুহিন ছাড়াও শামায়লা বেহরোজ রহমান, নশিন শর্মিলি। চলচ্চিত্রটির সংগীত পরিচালনা করেছেন নীল কামরুল।

চলচ্চিত্রটি প্রসঙ্গে নির্মাতা আহমেদ তাহসিন শামস বলেন, “নীরিক্ষাধর্মী চলচ্চিত্রটির গল্প বয়ান, চরিত্রায়ণ ও অভিনয়শিল্পীদের সংলাপে চরিত্রের অস্তিত্ব সংকটটি ফুটিয়ে তুলেছি কিছুটা উত্তরাধুনিকরূপে। যৌনকর্মীদের জীবনের বিসন্নতা ফুটিয়ে তুলতেই এর রং রাখা হয়েছে সাদা কালো।

আমাদের দেশিয় বাস্তবতায় প্রেক্ষাগৃহে প্রদর্শনের কথা ভাবিনি। তাই এটি মুক্তি পেল আন্তর্জাতিক এ প্লাটফর্মটিতে। আশা করছি বিশ্ব চলচ্চিত্রের দর্শকদের পাশাপাশি দেশের দর্শকরাও চলচ্চিত্রটি শিগগিরই উপভোগ করবেন। ”

চলচ্চিত্রটিতে নিজের চরিত্র প্রসঙ্গে জনপ্রিয় অভিনেতা শাহাদাত হোসাইন বলেন, “চলচ্চিত্রটিতে আমার চরিত্রটি একটু পরাবাস্তব। কেননা চরিত্রটির অতীত, উপস্থিতি এবং সবই অন্যান্য চরিত্রদের কাছে অপরিচিত।

তাই দর্শকদের কাছে কিছুটা অদ্ভুত ঠেকবে এই ‘অপরিচিত’ চরিত্রটিকে । অন্যদিক থেকে চলচ্চিত্রটির কেন্দ্রিয় চরিত্র মৌ পতিতাবৃত্তি থেকে অনেক দূরে সরে যেতে পতিতালয় থেকে পালিয়ে যে গ্রামে এসে আশ্রয় নেয় সেখানে চরিত্রটিকে কিছুটা ‘আগন্তুক’ বলে মনে হবে।

দর্শক দ্বিধাগ্রহস্ত হবেন সে কি সমাজ সংস্কারক নাকি মৌ’র সন্তান মনসার পিতা। তার সবসময় চেষ্টা থাকবে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হতে মৌ যেন সাহসের সঙ্গে পা ফেলতে পারে, সাধারণ জীবনের অধিকার ফিরে পেতে পারে। ”

অভিনেত্রী মৌমিতা মিত্র মনে করেন, তার চরিত্রটি এমন একটি চরিত্র যেখানে সে কখনো স্নেহময়ী মা, পতিতা এবং বড় বোন।

প্রতিটি চরিত্রই এত স্বতন্ত্র ছিল যে, এটিতে বিশ্বাসযোগ্যভাবে চরিত্রটি ফুটিয়ে তোলা সত্যিই চ্যালেঞ্জিং ছিল। আমি চেষ্টা করেছি ভালোভাবেই চরিত্রগুলো ফুটিয়ে তুলতে। সম্পাদনা: খালিদ আহমেদ

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।