সিরাজগঞ্জে বঙ্গবন্ধু সেতুর ইনচার্জ রফিকের অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন - DesherSomoy24.com
ঢাকাশনিবার , ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২
  1. অপরাধ
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. নির্বাচন
  6. প্রচ্ছদ
  7. প্রধান খবর
  8. প্রবাসে বাংলা
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. ব্যবসা ও বাণিজ্য
  12. রাজনীতি
  13. শিক্ষা ও সাহিত্য
  14. সব
  15. সারাদেশ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সিরাজগঞ্জে বঙ্গবন্ধু সেতুর ইনচার্জ রফিকের অপসারণের দাবিতে মানববন্ধন

Mohammad Ali Sumon
ফেব্রুয়ারি ২৬, ২০২২ ৩:১৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সোহাগ হাসানঃ হত্যা, ট্রেনে অগ্নিসংযোগ, বাসে অগ্নিসংযোগ, বিস্ফোরক ও চাঁদাবাজিসহ ১৪টি মামলার আসামী বিএনপি’র সন্ত্রাসী রফিক কে বঙ্গবন্ধু সেতুর সিকিউরিটি ইনচার্জ চাকরীর পদ থেকে অপসারণ ও গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারী) দুপুরে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার মুলিবাড়ী চেকপোস্ট এলাকায় ১০ নং সয়দাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও সকল অঙ্গ সংগঠনের আয়োজনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

সয়দাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের আয়োজনে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, ১০নং সয়দাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নবীদুল ইসলাম, সহ-সভাপতি সাইদুল ইসলাম রাজা, যুগ্ম-সম্পাদক সেরাজুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক সেরাজুল ইসলাম বিএসসি, দপ্তর সম্পাদক ফিরোজ হোসেন, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সাদ্দাম হোসেন প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, আগামী ৭দিনের মধ্যে ১৪টি মামলার আসামী সয়দাবাদ ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি রফিক কে বঙ্গবন্ধু সেতুর সিকিউরিটি ইনচার্জ চাকরীর পদ থেকে অপসারণ না করা হলে উত্তরবঙ্গের প্রবেশদ্বার ঢাকা-বগুড়া মহাসড়ক অবরোধ করা হবে।

এসময় ১০নং সয়দাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামলীগের যুগ্ম-সম্পাদক রাশেদুল ইসলাম রাশেদ, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক রিগেন হোসেন, জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সম্পাদক সোহাগ হাসান পথিক, ছাত্রলীগ নেতা স্বাধীন আহম্মেদসহ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গ, মামলাগুলো হলো, বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানায় ২০১০ ইং সালের ১লা সেপ্টেম্বর দায়েরকৃত হত্যা মামলা (এফআইআর নং-৫), একই বছরের ২৮ জুন সদর থানায় দায়েরকৃত হত্যা মামলা (এফ আই আর নং-৩৫, জি আর নং-২৫৬), ১৫ সেপ্টেম্বর সদর থানায় হত্যা মামলা (এফআইআর নং- ৬), ২০১১ সালে ১৮ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানায় দ্রুত বিচার আইনে দায়েরকৃত মামলা (এফআইআর নং-৬), ২০১২ সালের ৯ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানায় দ্রুত বিচার আইনে দায়েরকৃত মামলা (এফআইআর নং-৫), ২০১৩ সালের ২০ অক্টোবর সদর থানায় বিস্ফোরক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের মামলা (এফআইআর নং-৪২), একই বছরের ২১ অক্টোবর সদর থানায় দায়েরকৃত দ্রুত বিচার আইনের মামলা (এফআইআর নং-৪৪), ৪ঠা ডিসেম্বর সিরাজগঞ্জ সদর থানায় দায়েরকৃত হত্যা মামলা (এফআইআর নং-৮), ২০১৫ সালে সদর থানার বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলা (এফআইআর নং- ৪৫), ২০১৮ সালের ২৭ ডিসেম্বর সদর থানার বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলা (এফ আই আর নং-৩৪), ২০২১ সালের ৩১ ডিসেম্বর সদর থানায় বিস্ফোরক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনের মামলা (এফআইআর নং-৫২)সহ আরো বেশ কয়েকটি। হত্যা, বিশেষ ক্ষমতা আইন, বিস্ফোরক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনসহ গুরুত্বপূর্ন বিভিন্ন ধারার মামলার এজাহারভুক্ত আসামি রফিক সরকার জেলও খেটেছেন একাধিকবার।

কিন্তু অদৃশ্য কারণে চাকরিতে বহাল থাকার পাশাপাশি পেয়েছেন পদোন্নতিও। বর্তমানে বঙ্গবন্ধু সেতুর সিকিউরিটি ইনচার্জ পদে কর্মরত রয়েছেন এই দাগি অপরাধি। যেকোন সময় সরকারের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করার জন্য যে কোন অপ্রিতিকর ঘটনা ঘটানোর আশংকা করছেন অনেকেই।

এ বিষয়ে ১০নং সয়দাবাদ ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি ও বঙ্গবন্ধু সেতুর সিকিউরিটি ইনচার্জ (ম্যানেজার) রফিক শেখ বলেন, ২০০৮ সালে রাজনৈতিক কারণে আমার বিরুদ্ধে কয়েকটি মামলা হয়েছিলো। এসব মামলায় আমি জামিনে রয়েছি।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।