সোনাতলায় এক শিক্ষার্থীকে ২টি টিকা দেওয়ার অভিযোগ - DesherSomoy24.com
ঢাকামঙ্গলবার , ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২২
  1. অপরাধ
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. নির্বাচন
  6. প্রচ্ছদ
  7. প্রধান খবর
  8. প্রবাসে বাংলা
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. ব্যবসা ও বাণিজ্য
  12. রাজনীতি
  13. শিক্ষা ও সাহিত্য
  14. সব
  15. সারাদেশ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

সোনাতলায় এক শিক্ষার্থীকে ২টি টিকা দেওয়ার অভিযোগ

Mohammad Ali Sumon
ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২২ ১২:২৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়ার সোনাতলা উপজেলায় এক স্কুল শিক্ষার্থীকে দুটি টিকা দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে৷ এতে করে ওই শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

এই ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, সোনাতলা সরকারি মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে গত ১৯ ফেব্রুয়ারি উপজেলার ৬টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় সাড়ে ৪ হাজার শিক্ষার্থীকে করোনার টিকা দেওয়া হয়৷ ওই দিন উপজেলার ইউনাইটেড স্কুল অ্যান্ড কলেজের ২০২১ সালের এসএসসি পাসকৃত শিক্ষার্থী ও একই উপজেলার শেখাহাতী গ্রামের মোকছেদ আলীর ছেলে নাসিম আহম্মেদ (১৭) টিকা দেওয়ার জন্য অন্যান্য শিক্ষার্থীদের ন্যায় সোনাতলা সরকারি মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে যায়।

এরপর বেলা আনুমানিক সাড়ে ১০টার সময় ওই শিক্ষার্থী টিকা কক্ষে প্রবেশ করলে দায়িত্বরত একজন স্বাস্থ্যকর্মি তার ডান হাতে টিকা দেয়। এর পরপরই কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই অন্য আরেক স্বাস্থ্যকর্মি এসে ওই শিক্ষার্থীর ওই হাতে আরেকটি টিকা প্রয়োগ করে।

এরপর ওই শিক্ষার্থী হইচই শুরু করে দিলে স্কাউট শিক্ষার্থীরা এসে তাকে লাঠি পেটা করে টিকা কক্ষের বারান্দা থেকে নিচে নেমে দেয়৷ ওই শিক্ষার্থী কোন উপায় না পেয়ে তার সহপাঠিদের সঙ্গে একটি অটোভ্যানযোগে নিজ বাড়িতে ফেরে। এরপর ওই শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়ে৷

সোমবার নাসিমের পিতা মোকছেদ আলী জানান, ছেলেকে দুইবার টিকা দেওয়ায় বাড়িতে আসার পর তার ছেলে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। এরপর স্থানীয় চিকিৎসকের প্রাথমিক চিকিৎসায় প্রায় ২৪ ঘন্টা পর জ্ঞান ফেরে এবং কিছুটা সুস্থ অনুভব করে। তবে এখন পর্যন্ত তার ছেলে ডান হাত অবশ হয়ে রয়েছে।

এ বিষয়ে সোনাতলা সরকারি মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মতিয়ার রহমান জানান, লোকমুখে আমিও বিষয়টি শুনেছি। তবে স্কাউট শিক্ষার্থীদের লাঠি পেটার কথা তিনি অস্বীকার করেন। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আহসান হাবিবের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ভিড়ের কারণে টিকা কেন্দ্রের স্বাভাবিক পরিস্থিতি বিঘ্নিত হয়৷

এসময় স্বাস্থ্য কর্মিরা তাদের কর্মকান্ডে হিমশিম খেতে হয়৷ এমন অবস্থায় ভুলক্রমে ওই শিক্ষার্থীকে দুটি টিকা প্রয়োগ করে। এ বিষয়ে সোনাতলা উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প. কর্মকর্তা ডা. এহিয়া কামাল জানান, এ রকম তো হওয়ার কথা নয়৷ এ ধরনের কিছু হয়ে থাকলে কেউ আমাকে অবগত করেনি। তবে এ ধরনের কাজ কেউ করে থাকলে তা অবশ্যই দুঃখজনক৷

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।