ঢাকা ১১:১৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ১২ আশ্বিন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ
সর্বশেষ ::
ইউস্যাফের ঈদ আয়োজন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত বরকামতা ইউনিয়নবাসীকে ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানালেন আওয়ামী লীগ নেতা জসিম উদ্দিন আহমেদ আওয়ামী লীগ নেতা কালীপদ মজুমদারের অর্থায়নে ঈদ সামগ্রী বিতরণ সুনামগঞ্জের শাল্লায় সংঘর্ষে ২ জন নিহত আহত ২০ একজন গ্রেফতার ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা এড. রফিকুল আলম চৌধুরী  ঈদুল আযহার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মোহাম্মদ আলী সুমন ছাতকে খালের পানিতে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু ক্ষমতার লোভে দেশের সম্পদ বিক্রি করবো এমন বাবার মেয়ে আমি না : প্রধানমন্ত্রী ঈদুল আযহার অগ্রীম শুভেচ্ছা জানিয়েছেন মোস্তফা কামাল ঈদুল আযহার অগ্রীম শুভেচ্ছা জানিয়েছেন স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা জিএস সুমন সরকার

শ্রীপুরে দুই শিক্ষা কর্মকর্তার দুর্নীতির বিরুদ্ধে  মুক্তিযোদ্ধার অভিযোগ 

মাহফুজুর রহমান ইকবাল।
  • আপডেট সময় : ০৭:২২:০৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২০৮ বার পড়া হয়েছে
দেশের সময়২৪ অনলাইনের সর্বশেষ নিউজ পেতে অনুসরণ করুন গুগল নিউজ (Google News) ফিডটি

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলা শিক্ষা অফিসার নূর মোহাম্মদ ও সহকারী শিক্ষা অফিসার সিকদার হারুন অর রশিদ এর অপরাধ,অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে ।

অভিযোগকারী বীরমুক্তিযোদ্ধা মফিজ উদ্দিন, উপজেলার তেলীহাটি ইউনিয়নের টেপিরবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা।লিখিত অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, দুই শিক্ষা কর্মকর্তার পৈতৃক বাড়ি টাঙ্গাইলের সখিপুর একই উপজেলায় থাকায় তারা সংঘবদ্ধ ভাবে অনিয়ম দুর্নীতি শুরু করেন। অনেক শিক্ষক এসব অপকর্ম জেনেও প্রতিবাদ করতে ভয় পায়। সম্পর্ক স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে অনেক কিছুই সহ্য করেন।
শিক্ষা অফিসার সরকারি পেশাকে গোপন রেখে কোটি কোটি টাকার জমির ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন।

কর্মরত স্টেশন শ্রীপুরেই তার একাধিক জমি বেচা-কেনার প্রমাণ মিলেছে। দলিলে তিনি পেশার জায়গায় ব্যবসা উল্লেখ করেন। শ্রীপুর সাব রেজিস্ট্রার অফিস সূত্রে জমির দলিল অনুযায়ী তার জাতীয় পরিচয় পত্র নং-৯৩১৮৫৮১৯৪৭৬৪৩ এবং জন্ম তারিখ:-১৫-০২-১৯৭৭। এছাড়াও মুক্তি মেলা- ২০২২ উপলক্ষ্যে তার নেতৃত্বে উপজেলার প্রতিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে একহাজার টাকা করে উত্তোলন করেন। বীরমুক্তিযোদ্ধা মফিজ উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, অপরাধ ও দুর্নীতিমুক্ত দেশ গড়ার লক্ষেই জীবন বাজি রেখে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করি।

এই দুই কর্মকর্তা সম্পর্কে তিনি আরও বলেন রক্ষক যখন ভক্ষক হয়, তখন তিনি সতাতা, আদর্শ, ভুলে যায়, ফলে তার কাছ থেকে সাধারণ মানুষ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হন। অপরাধ অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে ওই দুই কর্মকর্তার বিচারের দাবিতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি আশা করি খুব শিগগিরই তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

আপনার মন্তব্য

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আপনার ইমেইল এবং অন্যান্য তথ্য সংরক্ষন করুন

শ্রীপুরে দুই শিক্ষা কর্মকর্তার দুর্নীতির বিরুদ্ধে  মুক্তিযোদ্ধার অভিযোগ 

আপডেট সময় : ০৭:২২:০৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলা শিক্ষা অফিসার নূর মোহাম্মদ ও সহকারী শিক্ষা অফিসার সিকদার হারুন অর রশিদ এর অপরাধ,অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে ।

অভিযোগকারী বীরমুক্তিযোদ্ধা মফিজ উদ্দিন, উপজেলার তেলীহাটি ইউনিয়নের টেপিরবাড়ি গ্রামের বাসিন্দা।লিখিত অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, দুই শিক্ষা কর্মকর্তার পৈতৃক বাড়ি টাঙ্গাইলের সখিপুর একই উপজেলায় থাকায় তারা সংঘবদ্ধ ভাবে অনিয়ম দুর্নীতি শুরু করেন। অনেক শিক্ষক এসব অপকর্ম জেনেও প্রতিবাদ করতে ভয় পায়। সম্পর্ক স্বাভাবিক রাখার স্বার্থে অনেক কিছুই সহ্য করেন।
শিক্ষা অফিসার সরকারি পেশাকে গোপন রেখে কোটি কোটি টাকার জমির ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন।

কর্মরত স্টেশন শ্রীপুরেই তার একাধিক জমি বেচা-কেনার প্রমাণ মিলেছে। দলিলে তিনি পেশার জায়গায় ব্যবসা উল্লেখ করেন। শ্রীপুর সাব রেজিস্ট্রার অফিস সূত্রে জমির দলিল অনুযায়ী তার জাতীয় পরিচয় পত্র নং-৯৩১৮৫৮১৯৪৭৬৪৩ এবং জন্ম তারিখ:-১৫-০২-১৯৭৭। এছাড়াও মুক্তি মেলা- ২০২২ উপলক্ষ্যে তার নেতৃত্বে উপজেলার প্রতিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে একহাজার টাকা করে উত্তোলন করেন। বীরমুক্তিযোদ্ধা মফিজ উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, অপরাধ ও দুর্নীতিমুক্ত দেশ গড়ার লক্ষেই জীবন বাজি রেখে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করি।

এই দুই কর্মকর্তা সম্পর্কে তিনি আরও বলেন রক্ষক যখন ভক্ষক হয়, তখন তিনি সতাতা, আদর্শ, ভুলে যায়, ফলে তার কাছ থেকে সাধারণ মানুষ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ সুবিধা থেকে বঞ্চিত হন। অপরাধ অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগে ওই দুই কর্মকর্তার বিচারের দাবিতে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি আশা করি খুব শিগগিরই তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।