আশুলিয়ায় সংঘর্ষ; আহত-১০ - DesherSomoy24.com
ঢাকারবিবার , ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২২
  1. অপরাধ
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. নির্বাচন
  6. প্রচ্ছদ
  7. প্রধান খবর
  8. প্রবাসে বাংলা
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. ব্যবসা ও বাণিজ্য
  12. রাজনীতি
  13. শিক্ষা ও সাহিত্য
  14. সব
  15. সারাদেশ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

আশুলিয়ায় সংঘর্ষ; আহত-১০

Mohammad Ali Sumon
ফেব্রুয়ারি ২০, ২০২২ ৬:২৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

আশুলিয়া (ঢাকা) প্রতিনিধিঃ ঢাকার আশুলিয়ায় ঝুট ব্যবসা দখলকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এসময় উভয় পক্ষের হামলায় আহত হয়েছেন অন্তত ১০ জন।

রোববার সকালে আশুলিয়ার দক্ষিণ গাজিরচট আড়িয়ার মোড় এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় আশুলিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, আশুলিয়ার আড়িয়ার মোড় এলাকার এসএআর ইন্টারন্যাশনাল ক্লোথিং কারখানা থেকে সকালে ঝুটের মালামাল বের করা হচ্ছিল।

এসময় প্রতিপক্ষের স্থানীয় আমিন মাদবর, সবুজ, রাজু, আরাফাত ও সিজানের নেতৃত্বে ২০-২৫ জন ঝুট ব্যবসায়ী কাইয়ুম ও তার লোকজনের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এসময় তারা প্রতিরোধ করলে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় উভয় পক্ষের মধ্যে শুরু হয় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া। এসময় , রামদা, লাঠি ও ছেনিসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা করে সন্ত্রাসীরা। সংঘর্ষে অন্তত ১০ জন আহত হয়। পরে আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আশুলিয়া থানা পুলিশ।

আহত ঝুট ব্যবসায়ী মো. কাইয়ূম খান বলেন, আমি ২০১৯ সাল থেকে এই কারখানায় লিখিত চুক্তির মাধ্যমে ঝুট ব্যবসা করে আসছি।

গত ৬ মাস আগে স্থানীয় আমিন মাতবর ও তার লোকজন জোর করে ঝুট নামাতে চায়। থানায় অভিযোগ দিতে তারা আর ঝামেলা করবেনা বলে জানায়। কিন্তু এতোদিন পর হঠাৎ করে আজকে তারা ১৫-২০ হামলায় চালায়।

এ বিষয়ে আমিন মাতবর বলেন, এরআগে আমি এই কারখানায় মৌখিকভাবে ঝুট ব্যবসা করেছি। পরে কাইয়ুম ও সবুজসহ চারজনকে ব্যবসা ছেড়ে দেই। কিন্তু কাইয়ূম ব্যবসার শুরুতে তাদের ভাগ দিলেও। কয়েক সপ্তাহ পরে কাইয়ূম একাই ব্যবসা চালিয়ে যায় কাউকে কোন ভাগ দেয় না।

এ নিয়ে আগামীকাল সোমবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) থানায় সমাধানের কথা থাকলেও আজকে কাইয়ুম ও তার লোকজন ঝুট নামাতে শুরু করে। এতে বাঁধা দিতে গেলে এই ঘটনার ঘটে। এসময় আমার ভাতিজাসহ ৪-৫ জন আহত হয়েছে। তারা চিকিৎসা নিচ্ছেন। যদিও আমি ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলাম না।

এবিষয়ে আশুলিয়া থানার এস আই আল মামুন কবির বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে প্রতিপক্ষের কাউকে পাওয়া যায়নি।

প্রাথমিকভাবে জেনেছি কাইয়ূম নামে ব্যক্তি কারখানার সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়ে ঝুট ব্যবসা করে আসছিলো। ব্যবসা দখল বা আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্রে করে এই ঘটনা ঘটতে পারে। তবে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।