সারাদেশ

১৯৪৭ সাল থেকে এদেশে সখ্যালঘুরা নির্যাতিত– বক্তাগন

  প্রতিনিধি ২৩ অক্টোবর ২০২১ , ৩:৪১:২৫ প্রিন্ট সংস্করণ

received 572144577392561

এহসানুল হক রিপনঃ কুমিল্লা,চাঁদপুর,কক্সবাজার,চট্টগ্রাম,চাপাই নবাবগঞ্জ,রংপুর,সাতক্ষীরা,হবিগন্জের লাখাইসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে দুর্গা পুজা মন্ডপ, প্রতিমা ভাংচুর, হিন্দু বাড়ী ঘরে হামলা,ভাংচুর এবং মন্ডপ ও প্রতিমা পাহারারত চাঁদপুর নৃশংসভাবে খুন করার প্রতিবাদে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সামনে আজ সকালে জেলা বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদ,জাতীয় হিন্দু মহাজোট ও ব্রাহ্মণ সংসদের যৌথ উদ্যোগে অবস্হান ধর্মঘট ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

300px X 250px AD

জেলা বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা দিলীপ কুমার নাগের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন জেলা বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারন সম্পাদক প্রদ্যুৎ রন্জন নাগ,জেলা জাতীয় হিন্দু মহাজোটের সভাপতি জয় শংকর চক্রবর্তী, সাধারন সম্পাদক প্রবীর চৌধূরী রিপন,ব্রাহ্মণ সংসদের সভাপতি খোকন কান্তি আচার্য্য,ঐক্য পরিষদের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আদেশ চন্দ্র দেব,হরিপদ ভৌমিক দুলাল,

আইনজীবী ঐক্য পরিষদের সভাপতি এডঃ আসীম কান্ত কাজল,সাধারন সম্পাদক এডঃ যতন শর্মা, নাগরিক ফোরমের সাধারন সম্পাদক রতন কান্তি দত্ত,ঐক্য পরিষদের জেলা সহকারী আইন সম্পাদক এডঃ প্রণব কুমার দাস উত্তম,এডঃ সুভাষ দেব নাথ,দপ্তর সম্পাদক কানুলাল মজুনদার, তথ্য সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা সুবোধ দাস,
ঐক্য পরিষদের সদর উপজেলা সভাপতি প্রবীর কুমার দেব,সাধারন সম্পাদক সভ্যসাচী পাল বাবুল,শিক্ষক স্বদেশ দেবনাথ,ঐক্য পরিষদের নেতা বিজয় দেব, রতন লাল দে,বিধান চন্দ্র দাস,আজিত দাস প্রমুখ।

সভায় বক্তাগন বলেন,১৯৪৭ সাল থেকে এদেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘু ও জাতীগত সখ্যালঘুরা নির্যাতিত,এদেশে একটা কিছু হলেই বার বার আমাদের উপব নির্যাতন হয়, এর থেকে পরিত্রান চাই।

এদেশে আমরা উড়ে আসিনাই আমাদের পৈত্রিক ভিটায় আমরা সকলকে সাথে নিয়ে শান্তিতে বসবাস করতে চাই।এদেশে যতগুলি হামলা ও নির্যাতন হয়েছে একটার বিচারও হয়নি,নাসিরনগরে ২০১৬ সালের হামলার কোনটির বিচার হয়নি আমরা সকল হামলা ও নির্যাতনের বিচার দাবী করছি এই সমাবেশ থেকে।

কুমিল্লা থেকে শুরু হওয়া ঘটনার জন্য কুমিল্লা সাংসদ আ,ফ,ম বাহার উদ্দিন ও মেয়র সাক্কুকে আইনের আওতায় আনার দাবী জানান আজকের সমাবেশ থেকে।আমরা সংখ্যালঘু কমিশন ও পৃথক নির্বাচন ব্যবস্হার দাবী জানাই। আমরা এজন্য মুক্তিযুদ্ধ করিনাই,মুক্তিযুদ্ধ করেছি এদেশে সকলে মিলেমিশে বসবাস করব।

আরও খবর

Sponsered content