ভালোবাসা দিবসে এলাকাবাসীর জন্য জনপ্রতিনিধির অনন্য উপহার - DesherSomoy24.com
ঢাকাসোমবার , ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২২
  1. অপরাধ
  2. আন্তর্জাতিক
  3. খেলা
  4. জাতীয়
  5. নির্বাচন
  6. প্রচ্ছদ
  7. প্রধান খবর
  8. প্রবাসে বাংলা
  9. ফিচার
  10. বিনোদন
  11. ব্যবসা ও বাণিজ্য
  12. রাজনীতি
  13. শিক্ষা ও সাহিত্য
  14. সব
  15. সারাদেশ
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ভালোবাসা দিবসে এলাকাবাসীর জন্য জনপ্রতিনিধির অনন্য উপহার

Mohammad Ali Sumon
ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২২ ৯:৩৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

শাহজাহান চৌধুরী শাহীন, কক্সবাজারঃ পহেলা ফাল্গুন আর ভালোবাসা দিবসে এলাকাবাসীকে একসাথে দুটি উপহার দিলেন কক্সবাজার জেলার উখিয়া উপজেলার হলদিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ইমরুল কায়েস চৌধুরী । জনগণকে লাল গোলাপের সাথে জন্মনিবন্ধন উপহার দিয়েছেন তিনি।

ব্যাতিক্রমী এই উদ্যোগ নিয়ে ইমরুল কায়েস চৌধুরী প্রশংসায় ভাসছেন। সোনার হরিণ হয়ে ওঠা জন্মনিবন্ধন নিজ হাতে ঘরে ঘরে পৌঁছে দিচ্ছেন চেয়ারম্যান, এটিকে জনপ্রতিনিধিদের জবাবদিহিতার বাস্তবায়ন বলে মনে করছেন সুশীল সমাজও। হঠাৎ এলাকায় ফুল আর জন্মনিবন্ধন হাতে চেয়ারম্যানকে পেয়ে বিস্মিত সাধারণ মানুষ।

ফাল্গুনের প্রথম দিনে টকটকে লাল গোলাপ আর জন্মনিবন্ধন নিয়ে মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছেন তিনি। হলদিয়াপালংয়ের বাসিন্দা কফিল উদ্দিন সিকদার জানিয়েছেন, পহেলা ফাল্গুনে চেয়ারম্যান নিজে ফুল আর জন্মনিবন্ধন নিয়ে আমার কাছে আসবে কখনও কল্পনাই করিনি।

জনগণের জন্য চেয়ারম্যানের এই ভালোবাসার দেশের অন্যান্য জনপ্রতিনিধিদের জন্য দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে বলেও মনে করেন তিনি। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য সরোয়ার কামাল বাদশা বলেন, ১৪ ফেব্রুয়ারি সকালে চেয়ারম্যান ইমরুল কায়েস চৌধুরী একহাতে গোলাপ আরেক হাতে ৩শ জন্মনিবন্ধন নিয়ে এলাকায় আসেন।

তিনিও একে দেখছেন একটি যুগান্তকারী উদ্যোগ হিসেবেই। চেয়ারম্যান ইমরুল কায়েস চৌধুরী জানান, জনপ্রতিনিধিদের দায়িত্ব হলো জনগণকে ভালোবাসা, জনগণের সেবা করা। বসন্ত ও ভালোবাসা দিবসটি ইউনিয়নের জনগণের সাথে পালন করতে পেরে আনন্দিত চেয়ারম্যান নিজেও।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।